ঢাকা - ডিসেম্বর ১০, ২০২২ : ২৫ অগ্রহায়ণ, ১৪২৯

গভীর রাতে অস্ত্র দেখিয়ে টাকাসহ স্বর্ণালঙ্কার নিয়ে গেল তারা

বাংলাদেশ২৪অনলাইন ডেস্ক
সেপ্টেম্বর ২৫, ২০২২ ২০:৫৩
১১৩ বার পঠিত

চাটমোহর (পাবনা) প্রতিনিধি:

পাবনার চাটমোহরে এক গৃহবধূকে অস্ত্রের ভয় দেখিয়ে তাদের বাড়ি থেকে নগদ ১০ হাজার টাকা আর দেড় ভরি স্বর্ণলঙ্কার নিয়ে গেছে দুই-তিন ব্যক্তি। রোববার (২৫ সেপ্টেম্বর) রাত আনুমানিক তিনটা থেকে সাড়ে তিনটার মধ্যে মুলগ্রাম ইউনিয়নের পাথাইল হাট গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। ঘটনার সময় গৃহবধূর স্বামী বাড়িতে ছিলেন না, ৫ বছরের মেয়ে আর ১২ বছরের ছেলে ছিল তার সঙ্গে। ভুক্তভোগীর দেবর আছের আলীর দেওয়া তথ্যে এসব জানা গেছে।

ওই গৃহবধূর স্বামী হচ্ছেন আকুল আলী। তিনি পিকেএস নামের একটি এনজিও প্রতিষ্ঠানে হিসাব রক্ষণ বিভাগে চাকরি করেন, এখন তার কর্মস্থল চাঁদপুর জেলায়। কেবল ছেলে-মেয়ে নিয়ে ওই গৃহবধূ তার স্বামীর বাড়িতে থাকেন। আকুল আলী মাঝে-মধ্যে ছুটিতে বাড়িতে আসেন, সবশেষ এসেছিলেন গেল ঈদে।

গৃহবধূর দেওয়া বর্ণনানুযায়ী আছের আলী বলছিলেন- পাশের রুমে তছনছ করার পর যখন ভাবীর ঘরে দুই-তিনজন লোক ঢুকে, তখন ভাবী তাদের উপস্থিতি টের পায়। এর আগে ছেলে-মেয়ে নিয়ে ভাবী ঘুমিয়ে ছিল। তাদের হাতে চাকু,বন্দুকও ছিল। এগুলোর ভয় দেখিয়ে ভাবীকে জিম্মি করে ফেলে তারা। লোকগুলোর মুখে মুখোশ ছিল না। কিন্তু, ভাবী তাদের চিনতে পারেননি।

লোকগুলো ভাবীকে ডেকে তোলেনি, তারা চলে যাওয়ার পর দেখা যায়- দরজার সিটকানি ভাঙা। তারা ভাবীকে অসম্মানও করেনি। ছেলে-মেয়েরও কোনো ক্ষতি করেনি, বলছিলেন আছের আলী। তিনি বলেন, এ ঘটনায় পরিবারের পক্ষ থেকে তিনি নিজেই ঘটনাটি লিখিতভাবে চাটমোহর থানাকে জানিয়েছেন। পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছে। এ বিষয়ে ‘ উচ্চশব্দ’ কারণে চাটমোহর থানার ওসি মো. জালাল উদ্দিনের সঙ্গে মোবাইলে কথা বলা সম্ভব হয়নি। তিনি একটি অনুষ্ঠানে অবস্থান করছিলেন, সেখানে মাইকে কথা চলছিল। প্রসঙ্গত, ইদানিং এ উপজেলায় মাঝে-মধ্যেই চুরির খবর পাওয়া যাচ্ছে।

এমকে



মন্তব্য