ঢাকা - আগস্ট ১৬, ২০২২ : ১ ভাদ্র, ১৪২৯

নিষেধাজ্ঞার কারণে ঋণ খেলাপি রাশিয়া

নিউজ ডেস্ক
জুন ২৮, ২০২২ ০৫:০০
৫৩ বার পঠিত

একশ’ বছরেরও বেশি সময় পর প্রথমবারের মতো ঋণ খেলাপি হলো রাশিয়া । রোববার দেশটি ঋণের কিস্তি পরিশোধে ব্যর্থ হয় বলে জানা গেছে। রাশিয়ার অর্থমন্ত্রী এ পরিস্থিতিকে ‘একটি প্রহসন’ হিসেবে চিহ্নিত করেছেন।

রাশিয়ার কাছে একশ’ মিলিয়ন ডলার অর্থ প্রদান করার অর্থ রয়েছে এবং তা দিতে ইচ্ছুক, কিন্তু নিষেধাজ্ঞার কারণে আন্তর্জাতিকভাবে লেনদেন জটিল হয়ে পড়েছে। ক্রেমলিন ঋণ খেলাপি এড়াতে প্রতিজ্ঞাবদ্ধ ছিল। কিন্তু তা ঠেকাতে পারেনি। এটি রাশিয়ার মর্যাদার ওপর একটি বড় আঘাত বলে মনে করা হচ্ছে।

২৭ মে, ১০ কোটি ডলার সুদের অর্থ প্রদানের কথা ছিল দেশটির। রাশিয়ার পক্ষ থেকে বো হচ্ছে- অর্থ ইউরোতে পাঠানো হয়েছিল ইউরোক্লিয়ারের একটি ব্যাংকে, যা বিনিয়োগকারীদের প্রদান করবে। কিন্তু সেটি সেখানে আটকে গেছে। সময়মতো সেটি পাননি পাওনাদাররা।

এদিকে, ইউরোতে অর্থ প্রদান করা রাশিয়ান বন্ডের কিছু তাইওয়ানিজ হোল্ডার সুদের পেমেন্ট পাননি বলে জানা গেছে। অর্থ নির্ধারিত তারিখের ৩০ দিনের মধ্যে পৌঁছায়নি। সেটির সময় শেষ হয় রোববার সন্ধ্যায়। ফলে এটি ঋণ খেলাপি হিসেবে বিবেচিত হয়।

এর আগে ১৯১৮ সালে বৈদেশিক ঋণ খেলাপি হয় রাশিয়া। বলশেভিক বিপ্লবের সময় নতুন কমিউনিস্ট নেতা ভ্লাদিমির লেলিন রাশিয়ার ঋণ পরিশোধ করতে অস্বীকার করেছিলেন সে সময়। যে কোনো ধরনের ঋণ পরিশোধে রাশিয়া সর্বশেষ খেলাপি হয় ১৯৯৮ সালে। বরিস ইয়েলৎসিনের পতনের সময় রুবলের সংকট দেখা দিলে অভ্যন্তরীণ বন্ডগুলোতে অর্থ প্রদান রাখতে ব্যর্থ হয়েছিল মস্কো। তবে বিদেশি ঋণ পরিশোধে খেলাপি হয়নি। খবর বিবিসির।



মন্তব্য