ঢাকা - জুন ৩০, ২০২২ : ১৬ আষাঢ়, ১৪২৯

পাকিস্তানেই ভালো থাকবে বিএনপি

নিউজ ডেস্ক
জুন ২৩, ২০২২ ১৭:১৩
৩৩ বার পঠিত

আওয়ামী লীগ সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, বিএনপি বাংলাদেশের স্বাধীনতায় বিশ্বাস করে না। তাদের সবাইকে গাট্টি বেঁধে পাকিস্তানে পাঠিয়ে দিলেই ভালো হয়। কারণ বর্তমানে পাকিস্তানের যে অবস্থা, তাতে ওখানেই ভালো থাকবে তারা। ২৩ জুন (বৃহস্পতিবার) রাজধানী ঢাকায় বঙ্গবন্ধু এভিনিয়ে আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে আওয়ামী লীগের ৭৩তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীর আলোচনা সভায় এসব কথা বলেন। প্রধানমন্ত্রী তার সরকারি বাসভবন গণভবন থেকে ভার্চুয়ালি সভায় যুক্ত ছিলেন।

আওয়ামী লীগ সভাপতি জানান, বিএনপি অগ্নিসন্ত্রাস করে জীবন্ত মানুষ পুড়িয়ে মেরেছে। তাদের শাসনামলে ১৯টা ক্যূ হয়েছে। হাজার হাজার সৈনিক অফিসারকে হত্যা করেছে, কত পরিবার লাশও পায়নি। জিয়াউর রহমান যাদের হত্যা, গুম করেছে- তারা কোনোদিন জানতেও পারেনি- কী তাদের অপরাধ? পরিবারে সদস্যরা জানতে পারেনি লাশগুলো কোথায়? গুম-খুন জিয়াউর রহমানই শুরু করে দিয়েছিল ৭৫ সালের পর, যখন সে রাষ্ট্রপতি হয়।

১৫ আগস্ট বঙ্গবন্ধু হত্যাকাণ্ড চক্রান্তের সঙ্গে জিয়াউর রহমান ও খালেদা জিয়া জড়িত উল্লেখ করে শেখ হাসিনা জানান- তারেক জিয়া সেটা প্রমাণ করে দিয়েছে, পঁচাত্তরে হাতিয়ারকে সমর্থন দিয়ে, অর্থ্যাৎ খুনিদের সমর্থন দিয়ে। এ খুনিদের তারা বিচারের হাত থেকে মুক্ত ও পুরস্কৃত করেছিল। ইনডেমিনিটি অর্ডিন্যান্স দিয়ে সেটাকে আইনে পরিণত করেছিল। খুনিদের বিভিন্ন দূতাবাসে চাকরি দিয়ে পুরস্কৃত করেছিল। কিন্তু পাপ বাপকেও ছাড়ে না। জিয়াউর রহমানকে সেইভাবেই নিহত হতেই হয়েছিল। তার লাশটাও কিন্তু কেউ পায়নি।

প্রধানমন্ত্রী পদ্মা সেতু নিয়ে বিএনপির সমালোচনা, বানভাসিদের পাশে তাদের না দাঁড়ানোর প্রসঙ্গেও কথা বলেন। সেই সঙ্গে বন্যাকবলিতদের পাশে তার দলের নেতাকর্মীদের দাঁড়ানোর কথাও তুলে ধরেন।

আওয়ামী লীগ সভাপতি শেখ হাসিনার সভাপতিত্বে আলোচনা সভায় আরও বক্তব্য দেন- দলটির সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য মতিয়া চৌধুরী, জাহাঙ্গীর কবির নানক, আব্দুর রহমান, মোফাজ্জল হোসেন চৌধুরী মায়া বীরবিক্রম, এএইচএম খায়রুজ্জামান লিটন, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাহবুবউল আলম হানিফ প্রমুখ।

এমকে



মন্তব্য