ঢাকা - মে ১৫, ২০২১ : ৩১ বৈশাখ, ১৪২৮

ঈদে ফিরতে না পারায় ওমানে ক্ষুব্ধ বাংলাদেশিরা

নিউজ ডেস্ক
মে ০৩, ২০২১ ০৯:৫০
৭০ বার পঠিত

চট্টগ্রাম সংবাদদাতা

ভ্রমণে বিধিনিষেধের আরোপের কারণে এবার দেশে ফিরে ঈদ করতে পারবেন না ওমানে বসবাসরত বাংলাদেশিরা। মোটা টাকা খরচ করে সংগ্রহ করা টিকিট কাজে না আসায় ক্ষোভ বিরাজ করছে ভুক্তভোগীদের মাঝে। যদিও দেশে ফিরতে ইচ্ছুক বাংলাদেশি প্রবাসীদেরকে এ বিষয়ে সরকার তথা দূতাবাসের অনুমতি নেয়ার কথা বলা হয়েছে। কিন্ত দূতাবাসে গিয়ে অনুমতি নেয়া সময় ও ব্যয় সাপেক্ষ ব্যাপার বলে জানিয়েছেন প্রবাসীরা। বাংলাদেশ সিভিল এভিয়েশন এ নিষেধাজ্ঞা আরোপ করেছে।

ওমানস্থ বাংলাদেশ সোস্যাল ক্লাবের সভাপতি সিরাজুল হক বলেন, ওমানে করোনা পরিস্থিতি স্বাভাবিক থাকলেও অন্য ১১টি দেশের সাথে ওমানকে যুক্ত করে দেয় সিভিল এভিয়েশন। অনেক প্রবাসী ঈদে বাড়ি যাওয়ার জন্য অগ্রিম টিকেট কেটেছেন। কিন্তকিককিকিকিকিবিববআববববককিন্তু এখন সিভিল এভিয়েশন পরিপত্রে বলেছে, প্রবাসীদের দেশে যেতে সরকারের অনুমতি লাগবে। এ অনুমতি নেয়া অধিকাংশ প্রবাসীর পক্ষে সম্ভব না। আবার দেশে গিয়ে ১৪ দিনের বাধ্যতামূলক কোয়ারেন্টিনে থাকতে হবে। তার মানে ঈদে অংশ নেওয়া আর সম্ভব হবে না।

সঙ্কট সমাধান প্রসঙ্গে তিনি জানান, ওমানে করোনা পরিস্থিতি বর্তমানে ভালো। তাই এটা বিবেচনায় এনে সিভিল এভিয়েশনের আরোপিত বিধিনিষেধ থেকে সালতানাত অব ওমানকে বাদ দিলে ওমান প্রবাসীরা দেশে গিয়ে পরিবার পরিজনের সাথে ঈদ আনন্দে অংশ নিতে পারবেন।

জানা গেছে, সিভিল এভিয়েশন অথরিটি বিমান চলাচলের ক্ষেত্রে কিছু বিধিনিষেধ আরোপ করেছেন, যা গত ১ মে থেকে কার্যকর হয়েছে। তাতে বলা হয় ভারত, সাইপ্রাস, দক্ষিণ আফ্রিকা, ওমান, ইরান, ব্রাজিলসহ মোট ১২টি দেশ হতে যাত্রা শুরু করে কেউ সরাসরি বা অন্য দেশে ট্রানজিট নিয়ে বাংলাদেশে আসতে পারবেন না। বাংলাদেশ থেকেও কেউ উক্ত দেশগুলোতে যেতে পারবেন না।

বিধিনিষেধে আরো বলা হয়, প্রবাসী বাংলাদেশি বা বাংলাদেশি নাগরিকদের মধ্যে যারা বিগত ১৫ দিনের মধ্যে এ ১২ টি দেশের কোনো একটিতে গেছেন, তারা সরকারের বিশেষ অনুমতি সাপেক্ষে বাংলাদেশে ফিরতে পারবেন। তবে এক্ষেত্রে বাংলাদেশে পৌঁছার পর তাদেরকে সরকার অনুমোদিত হোটেলে নিজ খরচে বাধ্যতামূলকভাবে ১৪ দিন প্রাতিষ্ঠানিক কোয়ারেন্টাইনে থাকতে হবে।

দিলীপ কুমার তালুকদার/এমকে



মন্তব্য