ঢাকা - মে ১৫, ২০২১ : ৩১ বৈশাখ, ১৪২৮

হেলে পড়া বহুতল ভবনের অনুমোদন নিয়ে ধোঁয়াশা

নিউজ ডেস্ক
এপ্রিল ১১, ২০২১ ২০:১৫
১০৮ বার পঠিত

চট্টগ্রাম সংবাদদাতা

চট্টগ্রাম নগরীর এনায়েত বাজার গোয়ালপাড়ায় হেলে পড়া পাঁচতলা ভবনের অনুমোদন নিয়ে ধোঁয়াশা সৃষ্টি হয়েছে। চট্টগ্রাম উন্নয়ন কর্তৃপক্ষ (সিডিএ) জানিয়েছে, অনুমোদন ছাড়াই ও ত্রুটিপূর্ণভাবে ভবনটি গড়ে তোলা হয়েছে। চট্টগ্রাম উন্নয়ন কর্তৃপক্ষের নিয়ম অনুসারে এত কম জায়গার ওপর ভবন তোলার নিয়ম নেই। তবে ভবন মালিকদের দাবি অনুমোদন নিয়েই ভবনটি গড়ে তোলা হয়েছে।

শনিবার (১০ এপ্রিল) রাতে ভবনটির নিচের পিলারে সংস্কার কাজ করার সময় সামনের দিকে হেলে পড়ে। এনায়েত বাজারের বাসিন্দা কার্তিক ঘোষ দশমিক পঁচাত্তর শতাংশ জায়গার ওপর ভবনটি তৈরী করেছিলেন।

এদিকে হেলে পড়ার ২০ ঘণ্টা পর ভবনটি ভাঙ্গার কাজ শুরু হয়েছে। নিরাপত্তামূলক ব্যবস্থা গ্রহণ করেই ভবনটি ভাঙ্গার কাজ শুরু করেছেন শ্রমিকরা। ঝুঁকিপূর্ণ হিসেবে ভবনটিতে ব্যানার টাঙিয়ে দেয় সিডিএ ও ফায়ার সার্ভিস। ভবনটি ঝুঁকিপূর্ণ হওয়ায় চলাচলের ক্ষেত্রে আতঙ্ক কাজ করছে সাধারণ মানুষের মনে।

চট্টগ্রাম উন্নয়ন কর্তৃপক্ষের প্রধান নগর পরিকল্পনাবিদ শাহিনুল ইসলাম খান সাংবাদিকদের বলেন, ঘটনাস্থলটি রেলওয়ে এলাকায় অবস্থিত। তাই ঐতিহ্যবাহী স্থাপনা বিবেচনায় এই এলাকায় সিডিএ ভবন নির্মাণের অনুমোদন দেয় না। তাছাড়া এক শতাংশেরও কম ছোট জায়গায় সিডিএ ভবন নির্মাণের অনুমোদন দেয় না।

ভবনের মালিক হেলে পড়া ভবনের অনুমোদনের কাগজপত্র দেখিয়েছেন, তাহলে কিভাবে অনুমোদন দেয়া হলো সাংবাদিকদের এমন প্রশ্নে তিনি বলেন, তারা যেটি অনুমোদনের কাগজ দেখাচ্ছে তা ১৯৯৬ সালের পূর্বের। তবে ভবন দেখে মনে হয় না ততটা পুরনো। যে আইনে অনুমোদন দেয়া হয়েছে দাবি করছে, আইনটি অনেক আগেই বাতিল করা হয়েছে।

ভবনের মালিক দ্বীপ নারায়ণ ঘোষ সাংবাদিকদের বলেন, সিডিএ কোনো কিছু যাচাই-বাছাই না করে গতানুগতিক কথা বলছে। আমাদের কাছে ভবনের নকশা এবং অনুমোদন রয়েছে। তারা না জেনে এমন মন্তব্য করছে।

ফায়ার সার্ভিসের উপ-পরিচালক আজিজুল হক বলেন, ভবনটি অবশ্যই ঝুঁকির মধ্যে রয়েছে। ভবনটিতে ভাঙ্গার সময় পর্যাপ্ত নিরাপত্তামূলক ব্যবস্থা গ্রহন করে উপরের দিক থেকে ভেঙে নিচে আসতে হবে, না হলে দুর্ঘটনা ঘটার আশঙক্ষা রয়েছে। এদিকে, পরিদর্শনে এসে দ্রুত ঝুঁকিপূর্ণ ভবনটি ভেঙে ফেলার নির্দেশনা দিয়েছেন সিটি মেয়র রেজাউল করিম।

ডিকেটি/এমকে



মন্তব্য